মঙ্গলবার , ১২ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আবহাওয়া
  6. কৃষি ও প্রকৃতি
  7. খেলাধুলা
  8. গণমাধ্যম
  9. জাগো জবস
  10. জাতীয়
  11. ঢাকা
  12. দুর্যোগ ও দুর্ঘটনা
  13. ধর্ম ও জীবন
  14. প্রবাস জীবন
  15. ফিচার

মসজিদে নামাজের অপেক্ষায় থাকার ফজিলত

প্রতিবেদক
admin
ডিসেম্বর ১২, ২০২৩ ৭:৫৮ অপরাহ্ণ

নামাজ বা নামায (ফার্সি: نماز‎‎) বা সালাত বা সালাহ (আরবি: صلاة‎‎) ইসলাম ধর্মের পাঁচটি রোকনের মধ্যে দ্বিতীয় রোকন। প্রতিটি প্রাপ্তবয়স্ক ও বুদ্ধি-জ্ঞান সম্পন্ন, নারী পুরুষ নির্বিশেষে, প্রতিটি মুসলিমের জন্য ফরজ বা অবশ্যকরণীয় একটি ধর্মীয় কাজ হলো নামাজ।

Thank you for reading this post, don't forget to subscribe!

পবিত্র কোরআনুল কারিমের ঘোষণা হলো, ‘নিশ্চয়ই বিশ্বাসীদের জন্য নির্ধারিত সময়ে নামাজ আদায় করা আবশ্যক’। আর এক ওয়াক্ত নামাজ পড়ার পর পরবর্তী ওয়াক্ত নামাজ পড়ার অপেক্ষায় থাকা অনেক সাওয়াবের কাজ। যাদের অন্তরে এ অপেক্ষা থাকে তাদেরকে মসজিদে সঙ্গে অন্তর বেধে রাখা মুসল্লি হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। তাদের জন্য হাদিসের ঘোষণা এমন, হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যতক্ষণ বান্দা নামাজের স্থানে বসে নামাজের জন্য অপেক্ষা করতে থাকে ততক্ষণ সে নামাজেই থাকে। আর ফেরেশতাগণ বলতে থাকেন, ‘হে আল্লাহ! তাকে করুণা করুন। এভাবে ফেরেশতাগণ দোয়া করতে থাকেন। বান্দা যতক্ষণ পর্যন্ত না (ওই ব্যক্তি) নামাজের স্থান ত্যাগ করে’। (বুখারি ও মুসলিম)

সর্বশেষ - দেশজুড়ে

আপনার জন্য নির্বাচিত