1. admin@jagobarta24.com : admin : MD.Abul Hasan
  2. bashirgazi44@gmail.com : Gias Uddin : Gias Uddin
  3. jagobarta24info@gmail.com : অনলাইন ডেস্ক : অনলাইন ডেস্ক
  4. thakurgaon24news@gmail.com : MD.Abul Hasan : MD.Abul Hasan
  5. kapotnabi17@gmail.com : kapot nabi : kapot nabi
  6. info.jahid307ulipur@gmail.com : JAHID AL Hasan : JAHID AL Hasan
  7. Shohelrana.rt51@gmail.com : Shohel rana : Shohel rana
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি
সারাদেশ থেকে প্রকাশিত জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ প্রোটাল জাগো বার্তা ২৪ ডটকম এর জন্য, সারাদেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকারি কলেজে একযোগে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আপনি যদি সৎ ও কর্মঠ হোন আর অনলাইন গনমাধ্যমে কাজ করতে ইচ্ছুক তবে আবেদন করতে পারেন। যোগ্যতাসমূহঃ ১.সর্বনিম্ন Ssc পাস হতে হবে। ২.উপস্থিত বুদ্ধিমত্তার অধিকারী হতে হবে। ৩ .সৃজনশীল লেখালেখিতে যথেষ্ট দক্ষতা থাকতে হবে। ৪.মিশুক মনের অধিকারী হতে হবে। ৫.চালাক ও সাহসী হতে হবে। ৬.চাপ সহ্য করার ক্ষমতা থাকতে হবে। ৭.পুরুষ ও মেয়ে উভায়েই কাজ করতে পারবেন। শর্তসমূহঃ ১.কর্মরত জেলা ও উপজেলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে ২.নিজের স্মার্টফোন থাকতে হবে। ৩.নিজের ব্যবহৃত একটি জিমেইল/ ইমেইল ও একটি ফেইসবুক আইডি থাকতে হবে। ৪.অফিসের নিদের্শে বিভিন্ন জায়গায় ভ্রমনের মানসিকতা থাকতে হবে। ৫.কপি নিউজ করা যাবে না। ৬.বাসি নিউজ করা যাবে না। ৭.প্রতিটি নিউজ ফেসবুকে শিয়ার করতে হবে। ৮.ঘটনার সাথে সাথেই, নিউজ করে সবার আগে পাঠাতে হবে। ৯.মাসে অন্তত দুটি জনদূভোর্গের ভিডিও নিউজ করে পাঠাতে হবে। ১০. সরাসরি ক্যামেরার সামনে কথা বলার মানসিকতা থাকতে হবে। ১১.স্থানীয় মানুষের সাথে পরিচিতি বাড়াতে হবে। ১২.রাষ্ট্রদ্রোহী ও স্বাধীনতা বিরোধি নিউজ করা যাবে না। ১৩. কোন রাজনৈতিক দলের সদস্য হওয়া যাবে না। ১৪.সাংবাদিক পরিচয়ে হুমকি ধামকি দিয়ে ঘুষ গ্রহন ও চাদাবাজি করা যাবে না ১৫.সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিনা ভাড়ায় সরকারি ও বেসরকারি যানবাহনে চলাচল করা যাবে না। সুযোগ সুবিধাঃ ১.পত্রিকার লোগো সহ প্রতিবছর একটি টিশার্ট দেওয়া হবে ২. প্রতি মাসে কমপক্ষে একটি বিজ্ঞাপন দিতে হবে। ৩.বিজ্ঞাপনের ৫০% প্রদান করা হবে,। নিয়োগ প্রক্রিয়াঃ পাঠানো আবেদন যাচাই বাছাই করে কেবল যোগ্যদের সাথে যোগাযোগ করা হবে এবং নির্বাচিতদের কে নিজ উপজেলায় প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। জিমেইল করে যা যা পাঠাতে হবেঃ ১.নিজের নাম ২.পিতার নাম ৩.মাতার নাম ৪.গ্রামের নাম ৫.ইউনিয়নের নাম ৬.কর্মরত জেলা,উপজেলার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নাম ৭.জেলার নাম ৮.জন্ম তারিখ ৯.দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি ১০.নিজের মোবাইল নম্বর দিতে হবে ১১.আত্বীয় স্বজন হয় এমন এক ব্যক্তির ফোন নম্বর দিতে হবে আবেদন পাঠাবেন নিচের এই ঠিকানায় jagobartacv24@gmail.com আমাদের ফেসবুল পেইজঃJagobarta24com প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন মোবাইল : ০১৮৬০০০৩৬৬৬

আব্দুল আলিমের ভাগ্য বদলের চেষ্টা, করছেন মাল্টা ও বেদানা চাষ

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট, ২০২১

অন্তু দাশ, তালা ( সাতক্ষীরা )

    ছোট ছোট গাছে ঝুলছে থোকা থোকা মাল্টা ও বেদানা। কম জমিতে খুব অল্প পুঁজিতে লাভ বেশি হওয়ায় স্বপ্ন ও সম্ভাবনার পথ দেখাচ্ছে বিদেশী ফল মাল্টা ও বেদানা।সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলায় বেলে দোআঁশ মাটিতে সাম্প্রতিক উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে মাল্টার চাষ।
    মাটি চাষের উপযোগী হওয়ায় মাল্টা ও বেদানা ফলন ভালো হবে বলে আশা প্রকাশ করছেন তালা উপজেলার আব্দুল আলীম মোড়ল।

    সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার আগোলঝাড়া গ্রামের মৃত নূর আলীর পুত্র মো: আব্দুল আলীম মোড়ল সংযুক্ত আরব আমিরাতে ইলেকট্রিশিয়ান হিসেবে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। বেতনও পেতেন ভালো। দীর্ঘদিন চাকরি করার পরে আসেন নিজ দেশে এসে মাল্টার বাগান করার পরিকল্পনা করেন। বিষয়টি নিয়ে পরিবারের সদস্যদের মাঝেও উৎসাহ পান তিনি। উপজেলায় জনপ্রিয় হয়ে উঠতে শুরু করেছে মাল্টা ও বেদানা ফল চাষ ।

    মাল্টার পাশাপাশি বেদানা ফল চাষের প্রতি মনোযোগী হয়ে শুরু করেন নিজ গ্রামে ফলের বাগান। সাইট্রাস পরিবারভুক্ত এই রসালো ফল চাষাবাদে দিন দিন আশার আলো দেখছেন তিনি। তাঁর দেখাদেখি এলাকার অনেক বেকার যুবক স্বল্প পরিসরে মাল্টাবাগান করেছেন বলে জানা গেছে।
    মাল্টা ও বেদানা চাষের বিষয়ে মো: আব্দুল আলীম মোড়ল জানান, বিদেশে ও দেশে ইউটিউবসহ বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে মাল্টা চাষের ওপর প্রতিবেদন দেখে মাল্টা ও বেদানা চাষে আগ্রহী হয়। ২০১৯ সালে বাবার দেওয়া ৩৫ শতক জমিতে ১৭০টি মাল্টা ও ১৭০টি বেদানার গাছ দিয়ে শুরু করি ফলের বাগান। মাত্র তিন বছরেই তিনি আজ সফল মাল্টা চাষি।

    উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, তালা উপজেলায় চলতি বছরে ৫ হেক্টর জমিতে মাল্টার চাষ হয়েছে। তার মধ্য আগোলঝাড়া গ্রামের মাল্টা ও বেদানার ফলের বাগান সরকারীভাবে প্রদর্শনী প্লট হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। উপজেলায় বেলে দোআঁশ মাটিতে পরিমাণ বেশি থাকায় মাল্টা ও বেদানা ফল সহ অন্যসকল ফলের ভালো চাষাবাদ করা সম্ভব। তালা উপজেলায় বারী মাল্টা-১ মিষ্টি (পয়সা মাল্টা) ফলন একটু ভালো হয় ।

    পুষ্টিবিদদের মতে, কমলা আর বাতাবি লেবুর সঙ্করায়ণের সৃষ্ট ফল মাল্টা। ইংরেজী নাম সুইট অরেঞ্জ। বৈজ্ঞানিক নাম: Punica granatum। বর্তমানে দেশেও মাল্টার ভাল চাষ হচ্ছে। সেই সঙ্গে ফলনও ভাল। ইতোমধ্যেই তা প্রমাণ করে দিয়েছেন চাষীরা। দেশের কয়েকটি জেলায় এখন মাল্টার সফল চাষ হচ্ছে। ‘লেবুজাতীয় ফসলের সম্প্রসারণ ব্যবস্থাপনা ও উৎপাদন বৃদ্ধি’ প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন জায়গায় এসব চাষাবাদ ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। অপরদিকে দানায় ভরপুর অথচ নাম বেদানা। এক সময়ের আমদানি নির্ভর ফলটির চাষ এখন দেশেও হচ্ছে।

    গত বছরে তাঁর বাগানে সামান্য পরিমাণ মাল্টা ফল ধারণ করায় প্রায় বিশ হাজার টাকার মাল্টা বিক্রি হয়। তবে বেদানা গাছে এখনো ফল ধরেনি এবছর ফল ধরবে বলে আশাবাদী তিনি। বাগানে মাল্টা ও বেদানা ফলের পাশাপাশি বিভিন্ন প্রজাতির আমগাছ নারকেল, আমড়া ও লিচু গাছের চারা রোপন করেছেন। তবে মাল্টা ও বেদনা চাষের ওপর তিনি বিশেষ নজর রাখেন।

    তাঁর বাগানে থাইল্যান্ডের বেড়িকাটা মাল্টা ও ভারতীয় প্রলিত মাল্টা জাতের গাছ আছে। তিন বছর পরে গাছ ভেদে ৩০-৫০টি ফল ধারণ করেছে। বর্তমানে তাঁর বাগান পরিচর্যার জন্য একজন লোক সারাক্ষণ কাজ করেন। সেই সাখে তিনিও ও তার স্ত্রী এক মাত্র পুত্র মো: সাফিউদ্দীন মোড়ল ফল বাগানের কাজে সহয়তা করে যাচ্ছেন সর্বক্ষণ।

    তিনি আরও বলেন, তাঁর মাল্টা নিজ এলাকা ছাড়িয়ে পাশের শহরের ফলের বাজারে পৌঁছে যাবে বলে তিনি ধারনা করেন। তার এই মাল্টা ও বেদানা বাগান দেখতে দূরদূরান্ত থেকে বেকার যুবকসহ উচ্ছুক জনতা ভিড় জমাচ্ছে।

    তালা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা কৃষিবিদ হাজিরা খাতুন বলেন, মাল্টা চাষ অনেক লাভজনক ফল। আমাদের পক্ষ থেকে মাল্টা চাষি দের এন,এ,টি,পি-২ প্রকল্প ও জিকেডিএসপি প্রকল্পের আওতায় প্রদর্শনী প্লট করা হচ্ছে বেদেশী ফল চাষে আগ্রহ বাড়ানোর জন্য। এছাড়া সকল মাল্টা চাষীদের সঙ্গে কৃষি অফিস সার্বক্ষণিক যোগযোগ সহ সকলকে টেকনিক্যাল সাপোর্ট প্রদান করা হচ্ছে। আগোলঝাড়ার মো: আব্দুল আলীম মোড়ল মাল্টা ও বেদানা ফলের চাষ করছেন। আমি ব্যক্তিগতভাবে একজন সফল চাষি হিসেবে সর্বক্ষণ খোঁজ খবর নিচ্ছি।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো পড়ুন

সম্পাদক
মোঃ আবুল হাসান
মোবাইল 01860003666





© All rights reserved © 2019 jagobarta24
Site Customized By NewsTech.Com
Translate »
error: Content is protected !!