ঠাকুরগাঁওয়ে দোকান ঘরের মালিকানা নিয়ে শালিশে ইউপি পরিষদের আসবাবপত্র ভাংচুর

0

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁও জেলা রুহিয়া থানার ২১ ঢোলারহাট ইউনিয়নের ঢোলারহাট বাজারের একটি দোকান ঘরের মালিকানা নিয়ে শালিশে ২০ এপ্রিল মঙ্গলবার দুপুরে ইউপি পরিষদ চত্বরে হামলার ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, ঢোলারহাট বাজারে নুর হোসেন দুই বছর আগে ঢোলারহাটের বাসিন্দা সুদীপ্তর কাছে দোকান ঘরটি ক্রয় করেন ৩ নং আকচা ইউনিয়নের উত্তর ঠাকুরগাঁও গ্রামের নুর হোসেন এবং সেই দোকান আবার সুদীপ্ত ভারা নেন।

এ বিষয় নুর হোসেন এর কাছে জানতে চাইলে, তিনি বলেন, আমি দুই বছর আগে সুদীপ্তর কাছ থেকে দোকান ঘর টি ক্রয় করি এবং সুদীপ্তকে আবার মাসে ৮ শত টাকায় ভারা দিই কিছু দিন পরে সে আমার দোকানের ভারা তো দেই না আবার আমাকে নানা হুমকি প্রদান করে এবং দোকানের মালিকানা নিজের দাবি করেন।
সুদীপ্ত বলেন, দোকান ঘর টি আমার কাছে ছিল কিন্তু বন্ধ থাকায় নুর হোসেনের সাথে কোন যোগাযোগ করিনি কিন্তু নুর হোসেন বহিরাগত ছেলে নিয়ে দোকান ঘর ভাংচুর করে এবং ইউনিয়ন পরিষদে শালিশ চলাকালীন সময়ে হামলা করে তাতে অনেকে আহত হন।
২১ নং ঢোলারহাট ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান সিমান্ত কুমার বর্মন নির্মল বলেন, তারা দুই পক্ষ বাজারে অনেক হামলায় জরায় পরে তাদেরকে নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদে এক শালিশে বসি কিন্তু শালিশ চলাকালীন সময়ে হঠাৎ বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল নিয়ে কিছু বহিরাগত ছেলে অতর্কিত হামলা চালিয়ে পরিষদের ডেস্কটপ, ল্যাপটপ এবং বসার জন্য প্রায় ৩০ টি প্লাস্টিকের চেয়ার ভেঙে দিয়ে পালিয়ে যায়। তবে জানা যায় উক্ত ছেলে গুলো তাদের কোন একটা পক্ষ ভারা করে নিয়ে আসছে।
তিনি আরও বলেন, রুহিয়া থানায় অবগত করার পরে রুহিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চিত্ত রঞ্জন রায় সহ সংগীয় ফোর্স নিয়ে উপস্থিত হন।
রুহিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চিত্ত রঞ্জন রায় বলেন, আমি ঘটনা শুনে তৎক্ষনাৎ পরিষদে ফোর্স সহ উপস্থিত হই অভিযুক্ত দুই জন, নুর হোসেন ও সুদীপ্তকে থানায় নিয়ে আসি পরে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে