চিলমারীতে ৯৯৯এ ফোন, শিশুকে উদ্ধার করে মায়ের কাছে ফিরিয়ে দিলো পুলিশ

0
কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রামের চিলমারীতে ৯৯৯এ ফোন পেয়ে ৫মাসের এক শিশুকে উদ্ধার করে তার মায়ের কাছে ফিরিয়ে দিয়েছে চিলমারী মডেল থানা পুলিশ।
পুলিশ জানায়,সোমবার সন্ধ্যার দিকে ৯৯৯ থেকে ফোন আসে একটি পাঁচ মাসের বাচ্চাকে আটকে রেখেছে তার পাষন্ড পিতা এবং শিশুটিকে নিয়ে ঢাকায় চলে যাবে। এমন সংবাদ পেয়ে সাথে সাথেই জরুরী ডিউটিতে নিয়োজিত এসআই আতাউর রহমান, এএসআই জিল্লুর রহমান সংগীয় ফোর্স সহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠিয়ে দেয়া হয়। সেখানে শিশুটির অসুস্থ মা মাজেদা বেগম(২৪) স্বামী-মোঃ রফিকুল ইসলাম সাং-রাজারভিটা থানা-চিলমারী, জেলা-কুড়িগ্রাম এর নিকট উপস্থিত হয়ে জানা যায় গত ২১/০৩/২০২১ ইং তারিখ বিকাল ০৪.০০ ঘটিকার সময় পারিবারিক কলহের জেরে মাজেদা বেগমের স্বামী, দেবর ও শ্বাশুড়ী তাকে মারপিট করে। আঘাত প্রাপ্ত হয়ে মাজেদা বেগম ২২ মার্চ দুপুর ০২.৩০ ঘটিকার সময় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স,চিলমারীতে ভর্তি হন। কিন্তু পাষন্ড পিতা তার দুগ্ধপোষ্য শিশুকে রেখে দেন বাড়িতেই। এদিকে হাসপাতালে আহত মা তার শরীরের আঘাতের যন্ত্রণার সাথে বুকের জ্বালায় ভুগতেছিলেন। তার দুগ্ধপোষ্য শিশুকে স্তন পান করাতে না পেরে ব্যথায় তার বুক টন টন করছিল। পুলিশি তৎপরতায় জরুরী ডিউটিতে নিয়োজিত পুলিশ অফিসার এসআই আতাউর রহমান, এএসআই জিল্লুর রহমান ও সংগীয় ফোর্স স্থানীয় জনপ্রতিনিধির সহায়তায় দুগ্ধপোষ্য শিশু মিতু (০৫ মাস) কে উদ্ধার করে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেয়া হয়।
চিলমারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, সংবাদ পেয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে তার মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে