প্রতিবন্ধী ব্যক্তির জন্য বাস,ট্রেন,বিমানে বেয়াতিহারে ভাড়া নির্ধারণসহ যানবাহনের আসন সংরক্ষণ ও সুরক্ষা নিশ্চিতকরণে সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ

0

গাজী মো.গিয়াস উদ্দিন বশির,ঝালকাঠি:: জাতীয় উন্নয়নে দেশের সকল নাগরিকের সম-অংশীদারিত্বের সুযোগ সৃষ্টি একটি রাষ্ট্রীয় দাযয়িত্ব। ঝালকাঠি রাজাপুর কানুদাসকাঠী প্রতিবন্ধী সংস্থার সভাপতি নূরুজ্জামান বাবলুর আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা নিশ্চিতকরণে পরিচয়পত্র বহনকারী প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ও তার একজন সহযোগীর জন্য বাস,ট্রেন,বিমানে বেয়াতিহারে ভাড়া নির্ধারণসহ বহনযোগ্য মালামাল পরিবহনের সুযোগ সৃষ্টি এবং যানবাহনের আসন সংরক্ষণের পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় ও জণ প্রশাসন শাখার স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রের আইন বাস্তবায়নের নির্দেশের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনায় ও দপ্তরে অনুলিপি প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রতিটি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিও বাংলাদেশের নাগরিক কিন্তু আমাদের অজ্ঞতা ও কুসংস্কারাচ্ছন্ন মনোভাবের কারণে পারিবারিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে তাদের অংশগ্রহণের সুযোগ খুবই কম। অথচ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ২৭নং অনুচ্ছেদে বলা আছে- ‘‘সকল নাগরিক আইনের দৃষ্টিতে সমান এবং আইনের সমান আশ্রয় লাভের অধিকারী’’।
সংবিধানের ২৮নং অনুচ্ছেদে বলা আছে, ‘‘কেবল ধর্ম, বর্ণ, গোষ্ঠী, নারী, পুরুষ ভেদে বা জন্মস্থানের কারণে কোনো নাগরিকের প্রতি রাষ্ট্র বৈষম্য প্রদর্শন করবে না’’।
উল্লেখিত ২টি অনুচ্ছেদ ছাড়াও সংবিধানের মৌলিক অধিকার অনুচ্ছেদে আরো কিছু অধিকারের কথা বলা হয়েছে, সেখানে রাষ্ট্রের নাগরিক হিসেবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিগণ অন্যান্য ব্যক্তির ন্যায় সমান অধিকার ভোগ করবে। এভাবে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন দ্বারা প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অধিকার স্বীকৃত রয়েছে।

এছাড়াও বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার সংক্রান্ত জাতিসংঘ সনদ টহরঃবফ ঘধঃরড়হং ঈড়হাবহঃরড়হ ড়হ ঃযব জরমযঃং ড়ভ ঃযব চবৎংড়হং রিঃয উরংধনরষরঃরবং অনুসমর্থন (জধঃরভরপধঃরড়হ) করেছে। তাই প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অধিকার প্রতিষ্ঠা ও সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য ২০০১ সালের ‘বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী কল্যাণ আইন’ টি রহিত করে ২০১৩ সালে ‘প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন, ২০১৩ ইং এর প্রকাশিত গেজেটের ৩৯ নং আইনের ৭ (ঘ) ধারা অনুযায়ী‘প্রণীত হয়। রাজাপুর কানুদাসকাঠী প্রতিবন্ধী উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি মো.নূরুজ্জামান বাবলু‘র প্রচেষ্টায় দেশের লক্ষ লক্ষ প্রতিবন্ধী‘র ভাগ্যের উন্নয়ন ও গণপরিবহণে যাতায়াতের এবং আসন নিশ্চিত করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে রাজাপুর প্রতিবন্ধী উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি মো.নূরুজ্জামান বাবলু বলেন,আমরা প্রতিবন্ধী আমাদের জন্য সরকার প্রতিবন্ধী সুরাক্ষা আইন ও গণপরিবহণে আসন সংরক্ষন,যেমন বাস,ট্রেন,লঞ্চ ও বিমানে প্রতিবন্ধীদের জন্য আসন বরাদ্দ ও ভাড়া অর্ধেক দেওয়ার আইন থাকলেও বাস্তবে সেই আইনের প্রয়োগ নেই। আমরা বাসে বা লঞ্চে আইনের কথা বললেও তারা আমাদের ধমক দিয়ে বলেন,আইন আপনার পকেটে রাখেন। আমি জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয় ও পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রনালয়কে ধন্যবাদ জানাই তারা প্রতিবন্ধীদের কল্যাণের জন্য কাজ করেছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে