অসাংবাদিকদের প্রেসক্লাবের সদস্য করায় ৫জনের পদত্যাগ

0

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: কিছু ব্যক্তির স্বার্থ হাসিলের লক্ষে অসৎ উদ্দেশ্যে পকেট কমিটি করায় একই সাথে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়া থানা প্রেসক্লাব থেকে ৫ জন অব্যাহতি চেয়ে পদত্যাগ পত্র জমা দিয়েছেন ।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) বিকালে রুহিয়া থানা প্রেসক্লাব থেকে অব্যাহতি চেয়ে লিখিত চিঠি দেন, দৈনিক মানববার্তা’র মোঃ আনোয়ার হোসেন, দৈনিক আমার সংবাদ’র মো. আব্দুল কাদের জিলানী, দৈনিক জবাবদিহি’র মো. আল ফয়সাল অনিক, দৈনিক ভোরের চেতনা’র মো. মোস্তাফিজুর রহমান, দৈনিক বিজনেস বাংলাদেশ প্রতিনিধি আরিফুজ্জামান আরিফ।

জানা যায়, গেল বছরের ২৮ আগষ্টে রুহিয়া থানাধীন সকল কর্মরত সাংবাদিক ও সকল প্রেসক্লাব গুলোকে একত্রিত করার লক্ষে একটি ৬ সদস্যের আহব্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। যা সেপ্টেম্বর মাসে প্রকাশ করা হয়। এবং আহব্বায়ক কমিটি ৬ জনের মধ্যে ৩ জনকে না জানিয়েই হঠাৎ ১১ সদস্যের একটি পকেট কমিটি গঠন করেন। যা গঠন তন্ত্রের অনুচ্ছেদ ৪ এর ১৭নং ধারাটি বহিভূত। সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত সমৃহ রেজুলেশনে অন্তভুক্ত না করে জোরপূর্বক রেজুলেশনে স্বাক্ষর, যখন তখন তুচ্ছ অজুহাতে প্রকৃত সাংবাদিকদের সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার হুমকি ও অসাংবাদিকদের ঢালাওভাবে সদস্য করায় তারা পদত্যাগ পত্র জমা দেন।

অভিযোগকারীরা বলেন, কিছু ব্যক্তির স্বার্থ হাসিলের লক্ষে অসৎ উদ্দেশ্যে পকেট কমিটি করা এবং আমাদেরকে নানান প্রকার হুমকি দেয়। আর রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের সাংবাদিক বানিয়ে রুহিয়া প্রেসক্লাবের সদস্য পদ দেওয়া হয়। এই জন্যই আমরা পদত্যাগ করেছি।

এব্যাপারে রুহিয়া থানা প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বলেন, আমরা পদত্যাগ পত্রটি গ্রহন করেছি, আগামীকাল আমারা মিটিং ডেকেছি। সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

রুহিয়া থানা প্রেসক্লাব থেকে ৫ জনকে বহিষ্কার এর নামে অপ-প্রচারনা চালাচ্ছে। কারণ আমরা ৫ জন ১৬/০১/২০২১ইং তারিখে নিজেই পদত্যাগ পত্র জমা দিয়েছি। এখানে হাস্যকর বিষয় হচ্ছে কিছু অসাধু ব্যক্তি নিজেদের মান সম্মান বাঁচাতে ১৯/০১/২১ইং তারিখে সেটাকে বহিষ্কার বলে চালিয়ে দিচ্ছে

বিঃদ্রঃ ছবিতে পদত্যাগের কারণ দেওয়া রয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে